।। বাহনের অবসর বাসনা ।।
নিতাই চন্দ্র ঘটক, শ্রীরামপুর, ১১ই আশ্বিন, ১৪২১

সিংহ বলেন দুর্গামাকে, কেশর আমার গেল পেকে, লাগাব কলপ যাবে ঢেকে ।
তোমায় বয়ে হলাম ধন্য, প্রার্থনা তোমায় পেনসনের জন্য ।
নিজেই এবার দাঁড়াও দেখি, মর্তের এত হিংসা দেখে হলাম আমি বড়ই দুঃখি।
লক্ষীপাঁচা রাতের পাখী, তিনিই হলেন লক্ষীর বাহন সখী ।
দুষিত পরিবেশ আর সহেনা, অবসর চাই, কোরনা মানা।
ময়ূরের হল ভীষণ জালা , বন্ধ তাঁহার পেখম মেলা ।
বৃক্ষবিহীন ধরাতল হতে আবসর নিয়ে যাবই চলে ।
ওহে কার্তিক , চড়ো এবার ন্যানো বা স্কুটার, পরিবেশ হবে আরো ছাড়খার ।
গণেশ বাবাজির মনটি বড়ই খারাপ ,
ইঁদুর চালায় যন্ত্র-গণক, সইতে হচ্ছে তাই আঙুলের চাপ ।

মাউসবিনে কম্পুটার অচল, সেই মাউসই সঙ্গকরে গণেশ বাবাজি আছেন সচল ।
পরিবেশ চৌপাটে ইঁদুর বাবাজি আছেন আবসর চিন্তায় অটল।
রাজহংস কহেন মা বিদ্যাধারী, আমি তোমার পায়ে পড়ি ।
তোমার বীণার ভার বয়ে হলাম আমি শুধুই বুড়ি ।
ইচ্ছে আমার জলে চড়া, প্রমোটারের জালায় হলেম আমি পাড়া ছাড়া ।
ভাবছি এবার আবসর নিয়ে তোমার সঙ্গছাড়ি , মর্তে তোমার পূজা পন্ডহবে ভারি ।
সেই দুশ্চিন্তায় তাই হচ্ছেনা তোমার সঙ্গে ছাড়াছাড়ি ।
———–
পরিবেশ নিয়ে একটু ভাবুন । সারা কলকাতা নেশার বিজ্ঞাপনে ভরা ।

আমার ভাষা আমার প্রাণ
নিতাই চন্দ্র ঘটক, ভারত।

বর্তমানেপৃথিবীতে আনুমানিক ৬৫০০ ভাষায় মানুষ কথাবলে। তাদের প্রতিদিনকার যোগাযোগ, ভালবাসা, কষ্ট, আনন্দ,শত্রুতার প্রকাশ এই অসঙখ ভাষার মাধ্যমেই। বিশ্বায়নের যুগে সমৃদ্ধ ভাষাগুলোর চাপে বহু ভাষা বর্তমানে বিলুপ্তিরপথে। আমাদের বৈষয়িক মন আন্তর্জাতিক ভাষাগুলিকে আয়ত্তকরে পারদর্শি হয়ে উঠতে চাইছে। আমাদের বাংলাভাষা সংখ্যার বিচারে অনেক এগিয়ে এবং এই ভাষাতেই ১৪২ কোটি মানুষ জাতীয় সঙ্গীত গায়। (UNESCO ) ইউনেস্কোর হিসাব মতে এই সংখ্যা বৃহত্তম, ২য় স্থানে আছে চীনাভাষা, ১২০ কোটি জনের মুখের ভাষা।
৩য় স্থানে ইংরাজি ভষায় কথাবলে ৯৪ কোটিজন এবং চতুর্থ স্থানের স্প্যানিশ ভাষায় কথাবলে ৮০ কোটি জন।
আমার ভাষা আমার প্রাণ, তাই এই ভাষাতেই আমি গাই জীবনের জয়গান। এই ভাষাতেই চলি, কথাবলি। এসো সকলে মিলে গাই মাতৃভাষার জয়গান। আমার ভাষা মানেই আমার প্রান, আমার প্রেরণা , আমার চিন্তার উন্মেষ,তাই ২১শে কর্ণার প্রতিটি গ্রন্থাগারে স্থাপনকরা অবশ্য প্রয়োজনীয় কর্তব্য। এই ২১শে কর্ণার সকলকে প্রেরণাদেবে, সুচিন্তা বিকশিত হবার একটা পরিবেশ দেবে।

মাতৃভাষা দিবসে বাঙলাসহ সকল ভাষার প্রতি অর্পিলাম শ্রদ্ধাঞ্জলি।
বাঙলা ভাষা প্রকাশিছে মোদের আবেগ, সংষ্কৃতি, কৃষ্টির ঘটনাবলি।
সবার আশা, নিজ নিজ মাতৃভাষায় বক্তব্য, যুক্তি হোক প্রকাশিত।
মাতৃভাষা দিবসে শপথ, সবেমিলে করি নিজ নিজ ভাষা আলোকিত।
এ মহাবিশ্বে ১৪২কোটি জনের মুখের ভাষা আমরি বাঙলাভাষা।
এ ভাষায় বিশ্ববাসীর সাড়ে তিন শতাংশ জনে প্রকাশিছে আপন আবেগ ও আশা ।
এভাষায় কথায় গানে ২য় বৃহত্তম গায় গান।

এসো সবেমিলি রক্ষাকরি বাঙলা মায়ের ভাষা,মোদের প্রাণ।
রবীন্দ্র,নজরুল সহ বহুজনের লেখনি এই ভাষাকে করেছে উজ্জ্বল।
ভারতবাসীর ৮দশমিক ৭শতাংশের বাঙলা ভাষা মোদের বল।
সংখ্যার বিচারে বাঙলাভাষীর এশিয়ায় দ্বিতীয় স্থান।
বিশ্বমাঝারে ৫ম স্থান লয়ে এই ভাষার প্রসারে মোরা গরীয়ান।
সংখ্যাতথ্য বলে বাঙালীর আছে ২৬০ প্রকার পদবী।
বাঙলাভাষী রবে শীর্ষস্থানে ২০১৮সনে, তোমরা শুনেছোকি?

আমার বাঙলাদেশের সব বন্ধুজনে নমষ্কার,প্রীতি ও শুভেচ্ছান্তে।

ডাঃ নিতাই চন্দ্র ঘটক, ভারত।শ্রীরামপুর, পশ্চিমবঙ্গ।
Email ncghatak_2002@rediffmail.com